Header Ads

  • নতুন গতিবিধি

    Face Pack of Orange Peel in Bengali-ত্বকের যত্নে কমলালেবুর খোসার ফেসপ্যাক


    Face Pack of Orange Peel-ত্বকের যত্নে কমলালেবুর খোসার ফেসপ্যাক

    কমলালেবুতে রয়েছে প্রচুর পরিমানে ভিটামিন সি ,যা নিয়মিত খেলে ত্বক উজ্জ্বল থাকে। কমলালেবুতে ক্যালোরি খুব কম থাকে তাই আমরা রোজ ই কমলালেবু খেতেপারি ,ওজন ও বাড়েনা। এছাড়া কমলা লেবুতে রয়েছে ভিটামিন বি সিস্ক ,ম্যাগনেসিয়াম ও ক্যালসিয়াম। এটি আমাদের ভেতর থেকে ত্বককে উজ্জ্বল করেতুলতে সাহায্যকরে। এবার বলেরাখি লেবু খাওযার পর কিন্তু কমলার খোসা এবার থেকে ফেলেদেওয়া বন্ধকরুন। আমরা প্রায় সবাই কমলালেবু খাবার পর তার খোসাগুলি ফেলেদিই , কিন্তু আজথেকে আর সেটা করবেননা ,কেন?কারণ ওই কমলার খোসাগুলোকে এবার থেকে ত্বকের যত্নে ব্যবহার করা শুরুকরুন। 
    কমলা লেবুর খোসায় থাকে অরেঞ্জ এসেন্সিয়াল অয়েল আর এই অরেঞ্জ এসেন্সিয়াল অয়েলে র আছে বিশেষ গুনাগুন।
    ত্বকের যত্নে কমলালেবুর খোসার ফেসপ্যাক
    Face Pack of Orange Peel in Bengali-ত্বকের যত্নে কমলালেবুর খোসার ফেসপ্যাক

    Useful Benefits of Orange Peel - কমলালেবুর খোসার ফেসপ্যাক কার্যকরী গুনাগুন :-

    ১. অরেঞ্জ এসেন্সিয়াল অয়েল শুস্ক ,রুক্ষ এবং ক্ষতিগ্রস্থ ত্বক কে নরম,সুন্দর ও হেলদি করেতোলে। 
    ২. অরেঞ্জ এসেন্সিয়াল অয়েল ত্বকে আন্টি অক্সিডেন্টের শোষণ বাড়ায় এবং ত্বকের বয়সের ছাপ প্রতিরোধ করে। 
    ৩. ত্বকের স্বাভাবিক প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় , ছোট খাটো সমস্যা থেকে ত্বক সুরক্ষিত রাখে। 
    ৪. ত্বকে কোলাজেন উৎপাদন বাড়ায় এবং ত্বকের কমপ্লিট রেজুভিনেশনে সাহায্য করে এই অরেঞ্জ এসেন্সিয়াল অয়েল। 
    ৫. ত্বক উজ্জ্বল করেতোলে। 
    ৬. ত্বকে রক্ত সঞ্চালন বাড়ায়। 
    ৭. আমরা ত্বকের দাগ ছোপ দূর করতে অনেকসময় ব্লিচের ব্যবহার করেথাকে। কমলালেবু ও কমলার খোসা ত্বকে প্রাকৃতিক ব্লিচের কাজ করে থাকে। 
    ৮. কমলালেবুর শুকনো খোসা গুঁড়ো আমরা রোজ স্নানের সময় জলে মিশিয়া দিতেপারি ,আর ওই জলে স্নানকরেনিন। তাহলে ত্বক তরতাজা হয়ে উঠবে। 
    ৯. কেমিক্যাল ছাড়া মুখ পরিষ্কার করতে চাইলে কমলার শুকনো খোসা গুঁড়ো করে সেটি ফেসওয়াশ হিসাবে ব্যবহার করতে পারেন। প্রাকৃতিক উপায়ে মুখ পরিষ্কার রাখতে এর জুড়িমেলা ভার। 
    ১০. কমলালেবুতে রয়েছে ভিটামিন সি। এই লেবুর খোসা বড় হয়ে যাওয়া রোমকূপ এর গোড়াকে ছোট করেদেয় ,এবং ত্বককে মসৃন করতে সাহায্যকরে। 
    ১১. বলিরেখা কমায় কমলার খোসা। ৩০-৩৫এর চৌকাঠ পেরোনো মহিলাদের চোখের নিচে কপালে বলিরেখা বা বয়সের ছাপ পড়তে শুরুকরে।কমলার খোসা এই ভাঁজ কমাতে খুব কার্যকরী। 
    ১২. শীতে ত্বক ফেটেগেলে সেই ক্ষত কমায় কমলার খোসা। অনেক সময় দেখাযায় শরীরে ক্যালসিয়ামের ঘাটতি থাকার কারণে ত্বক ফেটে যাচ্ছে ,১০০গ্রাম কমলা লেবুর খোসা তে ১৬১মিলি গ্রাম ক্যালসিয়াম থাকে যা ক্যালসিয়ামের ঘাটতি কমিয়া ফাটা ত্বককে সুন্দর ও মোলায়েম করেতোলে এই কমলার খোসা। 
    ১৩. গায়ের রং যাদের শ্যামলা তাদের ত্বকে ও জেল্লা নিয়া আসে কমলার খোসা ,ফর্সা হতেগেলে ফেয়ারনেস ক্রিমের জায়গা বেছেনিন কমলার খোসা। 
    ১৪. নাক ও তার আশেপাশের অংশে থাকা ব্ল্যাক হেডস এর সমস্যায় ভোগেন না এরকম মানুষ খুব কম এ আছেন। কমলার খোসা ব্ল্যাক হেডস কমাতে ও খুব সাহায্য করে। 
    ১৫. যাদের তৈলাক্ত ত্বক তারা অনেকেই পিম্পল অর্থাৎ ব্রণের সমস্যায় ভোগেন ,ব্রণ ফুলে বড় হয়েগেলে ব্যাথায় কষ্ট পান, কমলার খোসা ও নির্যাস ব্রণ সুকীয়া ফেলতে সাহায্যকরে।

    Method of Making Orange Peel Powder - কমলালেবুর খোসার পাওডার বানানোর পদ্ধতি :-

    কমলালেবু খাবার পর খোসাগুলো না ফেলে ভালোভাবে রোদে সুকীয়া নিন। ভালোভাবে শুকনো খটখটে করে নিতেহবে, তারপর এই গুলিকে মিক্সি তে ভালোকরে পিষে মিহি করেনিন। ব্যাস তৈরী কমলালেবুর খোসার গুঁড়ো বা পাউডার। 
    এই কমলার খোসার গুড়োগুলোকে আপনারা চাইলে শুকনো কোনো ঢাকনা যুক্ত পাত্রে ৩-৪ মাস পর্যন্ত সঞ্চয় করে রাখতে পারেন। তবে লক্ষ রাখবেন যেন ভিজেহাতে হাত দেবেন না।

    কমলালেবুর খোসা সঠিক উপায়ে  কিভাবে ব্যবহার করাযাবে জেনেনিন :-

    ত্বকের যত্নে কমলালেবুর খোসার ফেসপ্যাক
    Face Pack of Orange Peel in Bengali-ত্বকের যত্নে কমলালেবুর খোসার ফেসপ্যাক


    ১.ক্লিনজার :-

    প্রথমে কাঁচা দুধ ও কমলালেবুর খোসার শুকনো পাওডার একসাথে মিশিয়ানিন একটি মিশ্রণ তৈরী করেনিন। এবার পুরোমুখে,গলায় ও দুই হাতে ওই মিশ্রণ লাগিয়ানিন এবং ৫মিনিট সবজায়গায় ভালোকরে ম্যাসাজ করুন। তারপর ঠান্ডা জল দিয়া ভালোকরে মুখ ,গলা ও হাত দুটো ধুয়েনিন। ত্বকে ক্লিঞ্জার এর কাজ করবে এই মিশ্রণ,ত্বকে ময়লা দূর করবে।

    ২.স্ক্র্যাবার হিসাবে :-

    কমলালেবুর খোসা শুকনো করে পাওডার বানিয়া নিন। এবার এটি স্ক্র্যাবার হিসাবে ব্যবহার করতে পারেন। যাদের তৈলাক্ত ত্বক ,তারা প্রথমে ১চামচ শুকনো মুসুর দলের গুঁড়ো নিন ,ও ১চামচ গুঁড়ো করা কমলার খোসা নিন। এবার এই দুই গুঁড়োর সাথে সামান্য গোলাপ জল মিশিয়া স্ক্রাব বানিয়ানিন। তারপর সারামুখ ও গলাতে ভালোকরে এই স্ক্র্যাবার লাগিয়ানিন ,তারপর ৪-৫ মিনিট অপেক্ষা করুন।, সময় হয়েগেলে হালকা হাতে মুখ ও গলা ৩-৪ মিনিট স্ক্রাব করুন তারপর জল দিয়া ধুয়েনিন। 
    যাদের শুস্ক ত্বক তারা ১চামচ ময়দা ও ১/২চামচ কমলার খোসার পাওডার  নিন এবার এই দুটিকে অল্প গোলাপ জল মিশিয়া পেস্ট বানিয়ানিন। এবার এই স্ক্রাবটি পুরো মুখ ও গলাতে ভালোকরে লাগিয়ানিন। ২-৩মিনিট অপেক্ষা করে তারপর হালকাহাতে ৩-৪ মিনিট স্ক্রাব করে ঠান্ডা জল দিয়া মুখ ও গলা ভালোকরে ধুয়ে নিন। 
    ঝোক ঝোকে ত্বক পেয়েযাবেন এই স্ক্র্যাবার করার ফলে। এটি পুরো পুরি প্রাকৃতিক ও।

    ৩.বডি স্ক্র্যাবার :-

    ৩চামচ কমলার খোসা ,১চামচ হলুদ গুঁড়ো ,২চামচ ব্যাসন ও ২চামচ ত্বক দই নিন। এবার এই সব উপকরণ গুলি একটি বাটিতে নিন ,এবং সব উপকরণগুলি ভালোকরে মিশিয়া একটি স্ক্রাব বানিয়ানিন। এবার সারাবড়িতে মিশ্রণটি ভালোকরে লাগিয়ানিন ,তারপর ১০ মিনিট অপেক্ষা করুন , তারপর হাত অল্প ভিজিয়া ৫-৭মিনিট স্ক্রাব করে নিন। তাপর ভালোকরে স্নান করেনিন। এই স্ক্রাব করার পর দেখবেন আর আলাদাকরে বডি ওয়াশ বা সাবান ব্যবহার এর দরকার পড়বেনা।

    ৪.ফেস প্যাক হিসাবে :-

    ১চামচ কমলার খোসা গুঁড়ো ,১/২ চামচ চন্দন গুঁড়ো।,১/২ চামচ মধু ও ১/২ চামচ হলুদ গুঁড়ো ও পরিমাণমতো গোলাপজল একসাথে মিশিয়া নিন।  এবার ভালোকরে ফেস ক্লিন করেনিন তারপর এই মিশ্রণটি মুখে ভালোকরে লাগিয়া নিন। এবার শুকানো পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। তারপর সুকিয়াগেলে ঠান্ডা জল দিয়া ভালোকরে মুখ ধুয়েনিন। 
    ভালোফলপেতে  এই প্যাক টি সপ্তাহে ৩-৪দিন লাগান।   

    কোন মন্তব্য নেই

    Post Top Ad

    Post Bottom Ad